সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:২৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাবনায় একই অধ্যক্ষ, একই সময়ে দুই প্রতিষ্ঠানে ডিউটি, বড় দূর্নীতি টঙ্গীবাড়ীতে জাল দলিল ও ভুমি দস্যূতার বিরুদ্ধে মানববন্ধন কমলনগরে জোরপূর্বক জমি ও ঘর দখলের অভিযোগ দৌলতপুরে গর্ভবতী মাকে গভীর রাতে হাসপাতালে পৌঁছে দিলেন ইউএনও সাটুরিয়ায় গুমের হুমকি দিয়ে ৮ মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগ আশুলিয়ায় মামলা তুলে নিতে বাদী’কে ধর্ষণের হুমকি কমলনগরে জেলের মরদেহ উদ্ধার। কমলনগরে কাভার্ডভ্যান চাপায় দুই যুবক নিহত। দৌলতপুরে খামারিদের সাথে ভেটেরিনারি ডাক্তারদের মিলনমেলা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে গাজিপুরে ভবন থেকে পড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু আশুলিয়ায় মাই টিভির সাংবাদিকের বাসায় চুরি দৌলতপুরে সৎমায়ের সহযোগিতায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৩জন আশুলিয়ায় ইন্সপেক্টর জামাল শিকদারের অভিযানে শ্রমিকদের বেতনের কয়েক লাখ টাকা উদ্ধার বেড়ায় শিয়ালের কামড়ে আহত ৪০ সড়ক দুর্ঘটনায় সেনাবাহিনীর এক সদস্যর মৃত্যু আশুলিয়া জিরাবো বাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত দৌলতপুরে খোলা বাজারে ৩০টাকা কেজিতে চাউল বিক্রি শুরু করেছে খাদ‍্য অধিদপ্তর আশুলিয়ায় সরকারি আইন উপেক্ষা করে বাড়ি নির্মাণ করছেন মামুন মন্ডল বিয়ের ব্যার্থতায় অভিমানে কিশোরীর আত্মহত্যা সিলেটের গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ৩ জনের

বেড়া-সাঁথিয়ার শ্রমিকদের গল্প- ২০ দিন আগে ড্রাইভিং লাইসেন্সের ফটোকপি জমা, এখনো পায়নি কোন সহায়তা

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • Update Time : বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৭৮২ পাঠক সংখ্যা

(বিশেষ) প্রতিনিধিঃ  দেশের চলমান মহামারী নোভেল করোনাভাইসের কারণে সবকিছু লকডাউন করা হয়েছে। এর মাঝে চরম সমস্যায় পড়েছে দিন-মুজুর ,হতদরিদ্র পরিবারগুলো । দূরপাল্লা সহ নিয়ম মেনে সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ।যারা এসব যানবাহনের শ্রমিক তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে ভাল আছেন তো? কি খাচ্ছেন,কোথায় পাচ্ছেন? তাদের খোঁজ খবর রাখছেন কি কেউ।মোটর শ্রমিকে যারা নিয়োজিত তাদের সহায়তা  তো দূরের কথা খোঁজও নেওয়া হচ্ছে না।কোথাও কোথাও শ্রমিকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ফটোকপি জমা নেওয়া হয়েছে প্রায় ২৫ দিন আগে।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে শ্রমিকদের জন্য শ্রমিক নেতাদের বরাদ্দের সহায়তা দলীকরণ করা হচ্ছে। আবার জেলায় যারা আছেন তাদের মাঝে বিতরণ করেই শেষ হয়ে গেছে। তবে এটুকই কি আশ্বাস ? নাকি সন্ধান মিলবে কোন হৃদয়বান শ্রমিক নেতার? পাবনার বেড়া-সাঁথিয়ার ট্রাক,বাসের সহ শত শত শ্রমিকদের অভিযোগ যেন বেড়েই চলছে।পরিবার-পরিজন নিয়ে খাদ্য সংকটে ভারী কষ্টে দিন পার করছে অনেকেই।তাদের অভিযোগ সু-সময়ে অনেক শ্রমিক নেতাই সামনে এসে হাজির হোন নের্তৃত্ব দিতে। কিন্তু, কে আসল নেতা,কে বা জনদরদি, একজন খেটে খাওয়া শ্রমিকের প্রকৃত বন্ধু তার পরিচয় হয়তো দেশের এই ক্লান্তিলগ্ন ব্যতীত বুঝা যেত না।এসব খেটে খাওয়া শ্রমিকদের কষ্ট আর দূর্দশা দূরীকরণে একজন প্রকৃত শ্রমিক নেতার অভাব ও পরিলক্ষিত হচ্ছে বলে জানান অনেকেই।

পাবনার বেড়া-সিএন্ডবি বাস্টস্ট্যান্ডের ট্রাক ড্রাইভার বাবলু বলেন,দীর্ঘদিন আমরা ঘরে বসে আছি। হাতে যে অর্থ ছিল তা এখন শেষ হয়েছে। পরিবার পরিজন নিয়ে খুব কষ্টে আছে। শ্রমিক নেতাদের কাছে সাহায্য চাইলে তারা বলেন, জেলা থেকে না আইলে কেমনে দিবো।

এ বিষয়ে বেড়ার বাদশা ড্রাইভার বলেন, বলার মত ভাষা হারিয়ে ফেলেছি এই রোজার মাসে কেমনে যে দিন পারন করছি আল্লাহ ব্যতীত কেউ জানেনা।আজ থেকে ২০ দিন আগে ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ফটোকপি জমা দিয়েছি কিন্তু কোন ফলাফল পাচ্ছি না।

উল্লেখ্য, বিষয়ে পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক মোশারফফ হোসেন এর মুঠোফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আজ থেকে প্রায় ২০ দিন আগে বেড়া-সাঁথিয়ার প্রায় ৭০০ শ্রমিকের কাছে থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ফটোকপি জমা নেওয়ার বিষয়ে পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি সরদার মোঃ রইজ উদ্দিনের সাথে কথা বলে জানতে পারি, শ্রমিকদের জন্য বরাদ্দের ত্রাণের আশ্বাসে তিনি এসব ডাইভিং কার্ড জমা নিয়েছিলেন। কিন্তু, সংশ্লিষ্ট মহলের নিকট শ্রমিকদের দূর্দশার কথা তুলে ধরেও কোন সুরহা মিলছে না।

সামনে পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, জেলা নেতারা যা দেন তা পৌরসভা আর নিজেদের এলাকার শ্রমিকদের দিযে শেষ করে ফেলেন। কিন্তু,আমরা প্রান্তিক এলাকার শ্রমিক নানা দিক থেকে অবহেলিত হচ্ছি।

সমসাময়িক ভাইরাসের কারণে দেশজুড়ে লকডাউন আর পবিত্র মাহে রমযান ও সামনে ঈদুল ফিতর । কিভাবে এই প্রতিবন্ধকতাকে পাড়ি দিবেন অত্র এলাকার শ্রমিকেরা ,এমন প্রশ্ন বেড়া-সাঁথিয়ার শ্রমিকদের।

শ্রমিকদের অভিযোগ দীর্ঘদিন মোটরশ্রমিকের সাথে তারা জড়িত।কিন্তু, কখনো এমন দুর্যোগের সম্মূখীন তারা হননি। এখন তাদের পরিবার নিয়ে যে অসহায়ত্বের গল্প যেন অজানাই থেকে যায়। লোকলজ্জায় প্রকাশও করতে চান না অনেকেই । কিন্তু আর কিছুদিন এমন সমস্যায় থাকলে বেঁচে থাকার আশাই যেন হারিয়ে ফেলবেন তারা। দ্রুত এসব শ্রমিকদের দুর্দশা নিরসনে সংশ্লিষ্ট মহলের সু- দুষ্টি কামনা করেছেন শ্রমিকেরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 Daily Vorer Khabor
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102