ঢাকারবিবার , ২২ অক্টোবর ২০২৩
আজকের সর্বশেষ খবর

পুরা গ্রামে চলাচলের রাস্তা বন্ধ, অর্ধ শতাধিক পরিবারের ভোগান্তি


অক্টোবর ২২, ২০২৩ ১১:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

টঙ্গিবাড়ী (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পুরা গ্রামে চলাচলের রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে আটকে দেয়া হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন অর্ধ শতাধিক পরিবারের প্রায় ৩শতাধিক মানুষ। গ্রামটির পশ্চিম পার্শ্বে রয়েছে পুরা ডি. সি. উচ্চ বিদ্যালয় এবং খেলার মাঠ। শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসীদের বিদ্যালয়, খেলার মাঠ এবং বাঘীয়া বাজারে যাওয়া আসার একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ করায় একালাবাসির ভোগান্তি বেড়ে চরমে পৌঁছেছে।স্থানীয়রা বলছে, একই গ্রামের বাসিন্দা সোহেল খান তাদের বাড়ির পাশে গ্রামের পশ্চিম দিকের রাস্তাটি এক সপ্তাহ আগে টিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে। এতে এলাকাবাসী চরম ভোগান্তিতে পড়েছে।সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দক্ষিণ পুরা গ্রামে পশ্চিম দিকে বের হওয়ার রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। এতে করে এলাকাবাসী রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করতে পারছেনা। রাস্তাটি বন্ধ থাকায় মাথায় বোঝা নিয়ে রাস্তাটির পাশে পানি দিয়ে অনেককে চলাচল করতে দেখা গেছে।উল্লেখ্য, এর আগে সোহেল খান নামের এক ব্যাক্তি ১নং খতিয়ানের সরকারি খাল ভেকো দিয়ে কেটে মাটি তুলে খালের চারপাশ ভরাট করে পুকুর নির্মাণ করে। দীর্ঘদিন যাবত সেই পুকুরে মাছ চাষ করে ভোগ দখল করে আসছে সোহেল। সরকারি খাল কেটে বানানো পুকুরটি দখল মুক্ত করে এলাকাবাসী চলাচলের সুবিধার্থে বাঁশের সাঁকো নির্মাণের নির্দেশ দেন উপজেলা প্রশাসন। এলাকাবাসী সাঁকো নির্মাণ কাজ শুরু করলে গ্রামে চলাচলের রাস্তাটি বন্ধ করে দেন সোহেল খান।পুরা গ্রামের বাসিন্দা এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক রাব্বি সরদার বলেন, আমরা গ্রামবাসী এই রাস্তাটি দিয়ে দীর্ঘদিন যাবত চলাচল করে আসছি। কিন্তু সোহেল খান নামের এক ব্যাক্তি তার বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে আটকে দেয়। ফলে গ্রামবাসী ও স্কুলের শিক্ষার্থীদের অনেক দূর ঘুরে স্কুলে যাওয়া আসা করতে হচ্ছে। আমরা গ্রামবাসী চাই প্রশাসনের সহযোগিতায় রাস্তাটি পূর্বের ন্যায় উন্মুক্ত করে দেয়া হোক।মো. সুমন নামের আরেক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, রাস্তাটি বন্ধ করায় বাচ্চাদের স্কুলে যাওয়া আসা করতে কষ্ট হচ্ছে। রাস্তাটি খুলে দিলে এলাকাবাসী এবং শিক্ষার্থীদের যাওয়া আসায় অনেক উপকার হবে।ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ইসমাঈল হোসেন খান বলেন, ‘রাস্তায় বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করা বেআইনি। আমি স্থানীয়দের নিয়ে সমস্যাটি দ্রুত সমাধান করব।’ফটো ক্যাপশন: পুরা গ্রামে রাস্তায় টিনের বেড়া, চলাচলের ভোগান্তি।

✅ আমাদের প্রকাশিত কোন সংবাদের বিরুদ্ধে আপনার মতামত বা পরামর্শ থাকলে ই-মেইল করুনঃ dailyvorerkhabor@gmail.com ❌ বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।