শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
জাককানইবি’তে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব- এর ৯২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন দৌলতপুরে শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব এর জন্ম বার্ষিকী পালিত নবীগঞ্জ মডেল প্রেসক্লাবের সাধারন সভা অনুষ্ঠিত কমলনগরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামাল এর ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালন। বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের আয়োজিত হল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বেলকুচি শাখার ইসলামী ব্যাংকের দূর্নীতি,ব্যাংক কর্মকর্তাদের দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ আশুলিয়ার আলী নূর হত্যাকারীকে নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৪ কমলনগরের যাত্রী ছাউনি গুলো এখন ব্যাবসায়ীদের দখলে । আশুলিয়ায় স্বামীকে জবাই করে স্ত্রী পলাতক সাভার থেকে সাত বছরের হত্যা মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার গাজীপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল দৌলতপুরে ইউপি উপ নির্বাচনে এই প্রথম ইভিএম এ ভোট গ্রহণ রাত পোহালেই করমজা ইউপি ভোট, প্রার্থীদের পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ দোকানে নিয়ে প্রতিবন্ধী শিশুকে ধর্ষণ আশুলিয়ার তুরাগ নদীতে নৌকা ডুবে অন্তঃসত্ত্বা নারী নিহত আশুলিয়ায় পাষন্ড সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে পোশাক শ্রমিক আহত কমলনগরে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা অনুষ্ঠিত। দৌলতপুরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২২ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন দৌলতপুরে স্বপ্নের ঘর পেল ১২৫ গৃহহীন পরিবার সাভারে যায়যায়দিন সাংবাদিকের বাসায় ডাকাতি

চাকুরী দেয়ার নামে ২০লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

আশুলিয়া (ঢাকা) সংবাদদাতা
  • Update Time : শুক্রবার, ৪ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৮ পাঠক সংখ্যা

 কখনো তিনি নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা, আবার কখনো পরিচয় দেন সেনাবাহিনীর বড় কর্মকর্তা। শুধু তাই নয় মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হিসেবেও পরিচয় দিতেন নিজেকে। আর এসব উপাধির তকমা লাগিয়ে এরই মধ্যে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে চাকুরী দেয়ার নামে হাতিয়ে নিয়েছে ২০ লক্ষাধিক টাকা। এমন পরিচয়ে এলাকায় ছোট ছোট দোকান থেকে কয়েক হাজার টাকার পণ্য বাকীতে নিয়েছেন। এরপর হঠাৎ কৌশলে এলাকা থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় আশা উদ্দিন (৫০) নামের ওই প্রতারককে ধরে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসি। শুক্রবার দুপুরে আশুলিয়ার শিমুলিয়া ইউনিয়নের উত্তর কলতাসূতি মরিচকাটা এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশে দেয় এলাকাবাসি। আটককৃত প্রতারক আশা উদ্দিন নড়াইলের কালিয়া থানাধীন খররিয়া গ্রামের সাইফুদ্দিনের ছেলে। বর্তমানে সে শিমুলিয়ার কলেজপাড় এলাকার ফিরোজের বাড়িতে স্ত্রী নার্গিস বেগমসহ ভাড়া থাকতেন। তিনি এরআগে রাজধানীর বারিধারার ডিপ্লোমেটিক জোনে সিকিউরিটি হিসেবে কাজ করতো। এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীরা জানান, আশা উদ্দিন বছর দুয়েক আগে আশুলিয়ার কলেজপাড় এলাকার ফিরোজের বাড়িতে ভাড়ায় উঠেন। এর আগে পাশবর্তী মরিচকাটা এলাকার খোকনের বাড়িতে ছিলেন। এলাকায় এসেই কৌশলে এলাকার প্রভাবশালীদের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলেন এবং নিজেকে পুলিশ অফিসার পরিচয় দিতেন। আবার কোন কোন সময় নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হিসেবেও দাবী করতেন। কিভাবে যুদ্ধ করেছেন সেই গল্পও শুনাতেন এলাকার চায়ের দোকানে। যাকে যেভাবে বুঝানো দরকার, সেভাবেই গল্প শুনাতেন। এলাকার কয়েকটি দোকান থেকে বাকীতে অনেক জিনিসপত্র নিতেন। সরকারি বড় অফিসার তাই বকাী টাকা সহজেই চাইতেন না দোকানীরা। ভুক্তভোগী দিলিপ কর্মকার বলেন, তিনি কলেজপাড় এলাকায় একটি জুয়েলারি দোকান দিয়ে ব্যবসা করেন। মাঝে মধ্যেই আশা উদ্দিন তার দোকানে আসতেন এবং গল্পগোজব করতেন। একপর্যায়ে নিজেকে পুলিশের বড় অফিসার পরিচয় দিতেন। তার নিজের বাড়ি এখানে আছে বলেও বলতেন। দোকানে মাঝে মধ্যে বসার সুবাদে ছেলেকে সেনাবাহিনীতে চাকরি দেয়া যাবে কিনা এমন প্রস্তাব দিলে ৭ লাখ টাকা লাগবে বলে জানান আশা উদ্দিন । পরে তার কথা মত তাকে সাড়ে ৬ লাখ টাকা দেই। কিন্তু দেড় বছর পার হলেও ছেলের চাকরির কোন খবর নেই। বার বার তাগাদা দিলেও সে নানা তালবাহানা শুরু করে। হঠাৎ খবর পাই, তিনি এলাকা ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। তাকে দেখতে পেয়ে আটক করে পুলিশে খবর দেই। এরআগে গত রাতে এলাকা থেকে মালামাল নিয়ে ট্রাকে করে পালিয়ে যাওয়া চেষ্টা করেছিলো আশা উদ্দিন। অপর এক ভুক্তভোগী নূর মোহাম্মদ বলেন, আমার ছেলেকে সরকারি অফিসে পিয়নের চাকরি নিয়ে দিবেন বলে ১০ লাখ টাকা নেয়। এছাড়া আরো ৪ লাখ টাকা ধার হিসেবে নেন। কিন্তু বছর পাড় হয়ে গেলেও চাকুরি দিয়ে পারেনি আশা উদ্দিন। গতকাল রাতে লোকমূখে খবর পাই সে ঘরের সকল মালামাল নিয়ে গোপনে লালিয়ে যাচ্ছে। পরে তাকে ধরে তার বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। পরে দুপুরে পুলিশে খবর দিলে তাকে আটক করে নিয়ে যান। এছাড়া কলতাসূতি মরিচকাটা এলাকার এক নারীকে ধর্মের বোন বানিয়ে তার কাছ থেকেও ৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই নারী ভোক্তভোগী জানান। প্রতারক আশা উদ্দিন চাকরি দেয়ার নামে টাকা নেয়ার কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, পুলিশ বা কোন কর্মকর্তা পরিচয় দিতেন না। দিলেও কেন তারা মেনেছেন? এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার এসআই মো. তানিম হোসেন বলেন, চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা করে টাকা আতসাৎ করেছে এমন অভিযোগে তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ভুক্তভোগীরা মামলা করতে চাইলে হবে। অথবা উভয়পক্ষ বসে কোন আপোস করলেও করতে পারে। এছাড়াও তদন্ত চলছে বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 Daily Vorer Khabor
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102