ঢাকাশনিবার , ৪ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ খবর

সম্পাদকীয় কলাম


ডিসেম্বর ৪, ২০২১ ৪:৩৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বর্তমান শ্রমআইন অনুযায়ী একজন শ্রমিকের মাসিক সাকুল্য সর্বনিম্ন বেতন-ভাতা ১৫০০০/- টাকা। একজন কাজের মানুষ- সপ্তাহের ৭ দিন সকাল ৬:০০টায় কাজের জন্যে তার ১/১.৫ কি:মি: দূরের বাসা থেকে বের হন। সকাল ৬:৩০ – ৭:০০টার মধ্যে শুরু হয়ে যায় প্রতিদিনের কাজ, সারাদিন পেরিয়ে রাত ৭:০০ – ৮:০০টায় কাজ শেষে বাসার উদ্দেশ্যে রওনা করেন এবং ৮:০০ – ৯:০০টার মধ্যে নিজ বাসায় ফিরেন। মাঝখানের সময়টায় তিনি ৩/৪টি বাসায় ছুটা কাজ করেন, কোন এক বাসায় গোসল সারেন, দুপুরের খাবার খেয়ে থাকেন, নামাজ পড়েন এবং সুযোগ পেলে দু’টো কাজের ফাকে কোনও এক বাসায় ২০-৩০ মি: বিশ্রাম নেন।

রাত ৮:০০ – ৯:০০টায় বাসায় ফিরে নিজ পরিবারের জন্যে শুরু করেন ২য় অধ্যায়ের কাজ, চলে রাত ১১:০০ – ১১:৩০ অব্দি, তারপর বিছানায় দেহ পেতে ঘুমের চেষ্টা। এরই মধ্যে গরীব সংসারের নানান ঝক্কিঝামেলার শত চিত্র হাজির হয় ক্লান্ত দেহের চোখের সামনে। কোনও সমস্যার সমাধান ছাড়াই চোখের পাতা একত্র করেন পরদিন ভোরে মনিবের বাসায় সময়মত কাজে যাবার তাগিদ থেকে। এভাবেই প্রতিদিন, সপ্তাহ, মাস কেটে বছর হয়, যুগ পেরোয়!

শরীর নামক যন্ত্রটার যন্ত্রনাও কম ধোকায় না! সাধারনত ছুটা কাজের লোকের প্রধান কাজটি হয় পানি সংশ্লিষ্ট, যেমন: ঘর-মোছা, কাপড়-ধোয়া, রান্না-করা, থালাবাসন মাজা ইত্যাদি। এসব কাজের পার্শপ্রতিক্রিয়া স্বরুপ তাদের ভাগ্যে জোটে সর্দি, কাশি, হাপানি, চর্মরোগ, বুকব্যাথা এবং আর্থ্রাইটিস নামক আধুনিক সব অসুখ। দিনভর কায়িক-শ্রম এবং বাইপ্রডাক্ট অসুখের সাথে মনিব-রানী, রাজকন্যা, রাজপুত এবং রাজবাড়ির অপরাপর সদস্যবর্গের অযাচিত ব্যবহার দেহশ্রমী ছুটাবুয়াখ্যাত মানুষটিকে কষ্টের যাতাকলে পিষ্ট করে প্রতিদিন। এভাবেই জীবনের চাকা পার করে ত্যাতোকষ্টের দীর্ঘ পথ।

কিন্তু রোজগার? হ্যা- প্রতিদিন, সপ্তাহের ৭দিন, মাসের ৩০ দিন, অসুখের দিন, ব্যাথার দিন, কষ্টে চোখভিজে যাবার দিনগুলির প্রতিদিন ৩/৪টি বাসায় ১০/১২ ঘন্টা ছুটা-খেটে সর্বসাকুল্য মাসিক আয় ৮ – ১২ হাজার টাকা! নাই ঈদ বোনাস (সামান্য কিছু অনিচ্ছুক ভিক্ষ্যে ছাড়া), নাই চিকিৎসা ভাতা, নাই অন্যকোনও আয়; তাহলে কিভাবে চলে ৩/৪ জনের একটি পরিবার? বাসা ভাড়া, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, খাদ্য, ঔষুধ, যাতায়াত, কাপড়-চোপর ইত্যাদির খরচ কি দিয়ে চলে?

হ্যা চলে- সব ঠিক চলে- যেভাবে চালায় তাদের শেষ ভরসা আল্লাহ রাব্বুল আল-আমিন!

সুতরাং গৃহকর্তা, গৃহকর্ত্রী, মনিব কর্তৃক ছুটাবুয়া/কাজের লোকের প্রতি অধিক আন্তরিক ও মানবিক আচরণ প্রত্যাশীত।

 

ডক্টর মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ ভুঁইয়া

সম্পাদক: দৈনিক ভোরের খবর

 

✅ আমাদের প্রকাশিত কোন সংবাদের বিরুদ্ধে আপনার মতামত বা পরামর্শ থাকলে ই-মেইল করুনঃ dailyvorerkhabor@gmail.com ❌ বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।