ঢাকাশনিবার , ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাবনায় সাবেক ছাত্রনেতা সুইট খাঁনের নের্তৃত্বেই হয় যুবদল ও ছাত্রদলের উপর হামলা

kmsobuj.myreportjtv@gmail.com
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০ ১:৪২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

কেএম সবুজঃ পাবনার-৪ ঈশ্বরদী উপ নির্বাচনের ধানের শীষের মনোনীত প্রার্থী মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিবের গণসংযোগ থেকে বাসায় ফেরার পথে হামলা করা হয় পাবনা জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হিমেল রানা,জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন,সহঃসাধারণ সম্পাদক,ইমরান হোসাইন সাব্বির সহ আরও অনেকের উপর। আসলে এই আতর্কিত হামলার নৈপথ্যে কে ছিল? এমন প্রশ্ন জাগতে ছিল সাধারণ নেতাকর্মীদের মাঝে। সময়ের সাথে রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় অনেক সময় সংবাদে প্রকাশিত হয় আওয়ামীলীগ-বিএনপি সংঘর্ষ। আসলে কি পাবনা জেলাতেও তেমনটাই হয়েছে?

হামলার স্বীকার ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা জানান, প্রথম থেকেই হামলার সাথে জড়িত পাবনা জেলার সাবেক ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক তসলিম হাসান খাঁন সুইট। অভিযোগ আছে, সুইট খাঁনের নের্তেৃত্বে একদল বহিরাগত সন্ত্রাসী চাপাতি ও চাক্কু নিয়ে এলোপাতারি ভাবে আক্রমণ করতে থাকে জেলার যুবদল নেতা হিমেল রানা ,জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সাদ্দাম হোসেন ,সহঃসাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসাইন সাব্বির সহ আরও অনেকের উপর ।এসময় প্রকাশ্যে হামলায় নের্তৃত্ব দিতে দেখা গেছে সাবেক ছাত্রদর নেতা সুইট খাঁনকে।

 

 

এ বিষয়ে পাবনা জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সাদ্দাম হোসেন বলেন, আমরা দলীয় কোন্দল ভুলে যেখানে আমাদের দলের নির্দেশ মেনে পাবনা-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে ধানের শীষের বিজয়ী ছিনিয়ে আনতে সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি সেখানে বিভিন্ন দল বিরোধী কাজে লিপ্ত থাকায়  পদ থেকে বাদ পড়ে থাকা সাবেক ছাত্রদল নেতা সুইট খাঁন বিরোধী দলীয এজেন্ট হিসাবে ধানের শীষের বিজয় ঠেকাতে আমাদের উপর হামলা করে আহত করেছে।

 

সুইট খাঁনের ব্যবহৃত ভেরিফাইড ফেসবুক আইডিতেও জেলা যুবদলের নেতাকর্মী ও বাংলাদেশ পুলিশের ঘুষ গ্রহণ উল্লেখ্য করে বিভিন্ন উসকানীমূলক পোষ্ট ও লক্ষ্য করা গেছে।

 

বিভিন্ন সময়ের বিতর্কিত এই সাবেক ছাত্রনেতার বিরুদ্ধের তথ্য-প্রমাণের ডজনখানেক ইতিমধ্যে ভোরের খবরের অনুসন্ধানী টিমের হাতে জমা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে ,জাতীয় পার্টি থেকে এক সময়ে বিএনপিতে যোগদান করে নানা সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করা এই নেতা জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তোতাকেও আহত করেছিলেন । এরপরে তিনি ১৫ দিন  দলের সকল কার্যকলাপ থেকে সাময়িক বরখাস্ত হোন।

 

পাবনা-২ সুজানগর উপজেলার নাজিরগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ মশিউর রহমানের নৌকা প্রতীকের নির্বাচনে সক্রিয় ভাবে তিনি মাঠে নৌকার পক্ষে ভোট চাওয়ার ও অভিযোগ রয়েছে।

 

নানা অভিযোগ আর সমালোচনায় ও কোন না কোন ভাবে দলের অন্যান্য কিছু নেতাদের আশ্রয়ে যেন অপকর্ম থেমেই নেই তার।

 

পাবনা জেলায় বিভিন্ন সময়ে সমালোচিত এই সাবেক ছাত্র নেতার বিরুদ্ধে জরুরি প্রদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জেলা যুবদল ও ছাত্রদলের সকল নেতাকর্মীদের।

✅ আমাদের প্রকাশিত কোন সংবাদের বিরুদ্ধে আপনার মতামত বা পরামর্শ থাকলে ই-মেইল করুনঃ dailyvorerkhabor@gmail.com ❌ বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।