আজ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ১০:০৩

বার : সোমবার

ঋতু : গ্রীষ্মকাল

অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল আউয়াল
অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল আউয়াল

আতঙ্ক নয় দরকার সচেতনতা,অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল আউয়াল

স্বাস্থ্য বার্তাঃ    

করোনা ভাইরাসঃকরোনা ভাইরাস এক ধরনের সংক্রমণ ভাইরাস।এই ভাইরাসটি মূলত নাক,মুখ, কান ও চোখের মাধ্যমে দেহে প্রবেশ করে প্রথমত ফুসফুসে আক্রমণ করে। লক্ষণঃকাশি,সর্দি,জ্বর অনুভূত হওয়া।জ্বর এর ৪ দিন বা এক সাপ্তাহের মাথায় গলা ব্যাথা,মাথা ব্যাথা,শ্বাসকষ্ট অনুভূত হওয়া।কারো কারো এই ভাইরাসটি প্রকাশ পেতে ১৪ দিন পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।শিশু,বৃদ্ধ ও কম রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাক্তিদের নিউমোনিয়া ও ব্রন্কাইটিস।আক্রান্ত ব্যাক্তির ৮১% শরীরে লক্ষণ দেখা যায়। প্রতিরোধঃজনসমাগম এড়িয়ে চলা,বাতাসে ১৩ ফুট পর্যন্ত ছড়াতে পারে-তাই ১৩ ফুট দূরুত্ব বজায় রাখা,আলিঙ্গন ও হাত মোলানো পরিহার করা,হাচিঁ ও কাশি দিলে রুমাল বা টিসু ব্যবহার করা,২০ সেকেন্ড সঠিকভাবে হাত ধোয়া বিশেষ করে সাবান দিয়ে,দরজার হাতল,লিফ্টের বাটন,মোবাইল ফোন,সুইচ ইত্যাদি স্পর্শ করার পর হাত ধোঁয়া বা টিসু দিয়ে স্পর্শ করা,খাবার খাওয়ার আগে ও পরে হাত ধোঁয়া,হাত না ধুয়ে চোখে,মুখে হাত দিয়ে না স্পর্শ করা,সাক-সবজি-ভিটামিন সি-ফলের রস বেশি খাওয়া,ঠান্ডা জিনিস পরিহার করা,দিনে অন্তত ২ বেলা গরম পানির সাথে আদা-লেবু-লবঙ্গ-মিশিয়ে পান করা বা গরম পানি দ্বারা কুলি করা,বৃদ্ধ-শিশু ও কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যাদের,-ডায়বেটিকস,হ্রদরোগ ও ফুসফুসের রোগে আক্রান্ত যারা তারা ঘরে থাকুন,প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না যাওয়া,করোনার প্রাথমিক উপর্সগ দেখা দিলে প্যারাসিটামল-ফেনাডিন ঔষধ সেবন করা,শুধু মাস্ক পড়েই ৯৫% আক্রমন ঠেকানো সম্ভব, তাই মাস্ক ছাড়া বাইরে না যাওয়া। আতঙ্কন নয় সচেতন হওয়া,একে অপরের প্রতি সহানুভূতি দেখানো,মনবল বাড়ানো।
অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল আউয়াল -এম,বি বি,এস,এম,এস (ইউরোলজি) অধ্যাপক ও প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান,ইউরোলজী বিভাগ,স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিডফোর্ড হাসপাতাল,ঢাকা। প্রাক্তন কনসালট্যান্ট,(ইউরোলজি),ইউনাইটেড হাসপাতাল লিঃ গুলশান-২,ঢাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category